৬ ডিসেম্বর, ২০১২

ফররুখ কর বিশ্রাম

কবি ফররুখ এবার কর তুমি বিশ্রাম,
পাঞ্জেরিকে ডাকতে হবেনা ফেলে ঘাম।
ফররুখ এবার দাও তুমি আরামের ঘুম।
ফেরদাঊসের মাটিকে দিয়ে চুম।
পাঞ্জেরিকে নিয়ে করোনা আর
দুঃখ কিংবা অযথা দুশ্চিন্তা।
পাঞ্জেরি মোদের এসে গেছে
দেখিয়ে দিয়েছে রাস্তা।
ঐ দেখ সাঈদী হাঁটে নির্ভিক পদে,
হাতে আল্লাহ্‌র কালাম লয়ে।
গোলাম আযম আজও জেলে,
এই অশীতিপর বয়সে।
মুজাহিদ, কামারুজ্জামান, নিজামী,
আরো আছে সেই সারিতে
কাদের মোল্লা, কাশেম আলী।
দীপ্ত পায়ে তাদের পথে হাঁটি।
এবার ফররুখ কর বিশ্রাম।
বিপ্লবের প্রহর গুণতে গুণতে,
আর ফেলতে হবে না
অনেক সাধের রক্তঘাম।।

১১ নভেম্বর, ২০১২

রক্ত-লাশের খায়েশ


"আমি রক্ত চাই, অনেক রক্ত!
লাল রক্ত, সাদা রক্ত
কালো হয়ে যাওয়া গাঢ় রক্ত।
গরম প্রবাহমান রক্ত
জমাটবদ্ধ ঠান্ডা রক্ত।

আমি লাশ চাই, একটা নয়,
দুইটা নয়, তিনটা নয়
অগনিত লাশ চাই
পুড়ে যাওয়া লাশ চাই,
ভর্তা হয়ে যাওয়া লাশ চাই,
গলাকাটা লাশ চাই,
হাঁ করা লাশ চাই,
চোখ খোলা লাশ চাই,
চোখ বন্ধ করা লাশ চাই,
থেতলে যাওয়া লাশ চাই,
হাত কাটা লাশ চাই,
পা কাটা লাশ চাই,
এসিড দগ্ধ লাশ চাই,
বুলেট বিদ্ধ লাশ চাই।


আমি বাংলাদেশ
রক্ত আর লাশ খাব
এটাই আমার খায়েশ।